Tips & Triks

প্রতিদিন ১০০ সবস্ক্রাইবার পাওয়ার উপায়

আপনি যদি চান যে আপনার চ্যানেলে প্রতিদিন পঞ্চাশ থেকে একশো মতো সাবস্ক্রাইবার আসুন তাহলে এই পোষ্টটি আপনার জন্য. আমি যে ওয়ে গুলো আপনাকে বলে দিবো এর একটাও কোনো রকম ভাবে আপনার চ্যানেলে স্পার্ম হবে না. প্রতিটা আপনার চ্যানেলের উপকারী হবে এবং ওই subscribe গুলো আপনার monitoration ও count হবে. আর যদি আপনার চ্যানেল এ এক হাজার subscribe এর ওপরে হয়ে থাকেন তারপর আপনি ব্যবহার করতে পারেন কারণটি হলো যে সবারই কিন্তু subscribe এর প্রয়োজন হয়ে থাকে. ও কিন্তু এখানে যে পদ্ধতি গুলো আপনাকে দেখানো হবে আপনি পদ্ধতি গুলো দিনে অন্ততপক্ষে এক ঘন্টার মতো কাজ করবেন, তাহলেই দেখবেন যে আপনার প্রথম দিন থেকে হয়তো রেজাল্ট আসা শুরু হয়ে যাবে.

প্রথম যে বিষয়টি রাখবো সেটা হলো কমেন্ট, আপনি ভালোভাবে বিষয়টা বোঝার চেষ্টা করবেন কোনোরকম স্পার্ম করবেন না, কমেন্ট হলো যে আপনি যখনই কারুর কোনো ভিডিও দেখেন দেখবেন যে অনেক বিষয়ের প্রশ্ন কমেন্ট বক্সে থেকে থাকে, তো এক্সাম্পল য়ার জন্য মনে করেন যে আপনার take channel অথবা আপনার education delete channel. আপনি take অথবা education related channel এ প্রথম visit করবেন. ভিজিট করার পরে দেখবেন যে সেখানে ওই যে channel এর ব্যক্তিগুলো যখন কোনো video upload করে অনেক মানুষ কমেন্ট box এ কমেন্ট করে প্রশ্নমূলক, যেমন আপনি হয়তো এই ভিডিও টা দেখার পরে আপনি কমেন্ট করতেসেন যে ভাইয়ের কিভাবে আপনার এই ইন্টারভিউ টা তৈরি করব.

তো আপনি জানেন যে কিভাবে ইন্টোর টা তৈরি করতে হয়, তাহলে কমেন্ট box এ যে আপনি উত্তরটা দিতে পারেন যে এইভাবে জায়েদ ভাইয়ের interrogate আপনি ব্যবহার করতে পারেন. তার ফলে যে সুবিধাটি আপনার হবে ওই ব্যক্তিটি তো reply পেয়ে গেল এবং আপনার চ্যানেলটা visit করলো. আর আপনি সঠিক উত্তর দেওয়াতে যে চ্যানেলের owner ছিল, ওই কিন্তু আপনার কমেন্ট টি delete করল না.

এভাবে যদি আপনি দিনে পঞ্চাশ টাকা করে কমেন্টের রিপ্লাই দেন ওই কমেন্ট কিন্তু সারাজীবন থেকে যাবে এবং ওই কমেন্টে আস্তে আস্তে লাইক উপরে আসতে থাকে তো সেক্ষেত্রে দেখা যায় যে প্রতিদিন সেখান থেকে কিছু কিছু পরিমান আপনি সাবস্ক্রাইবার পেয়ে যাবেন প্রথম রুলসটি আপনি ফলো করলে Okay তারপরে যে বিষয়টি দেখে হল ইনস্টেগ্রাম এবং Facebook, আমি বলবো না যে ইনস্টাগ্রামে Facebook এ আপনি লিঙ্ক শেয়ার করে করে বেড়ান. সম্পূর্ণটাই এখানে আলাদা হবে.

আপনি যখন কোন ইউটিউবের ভিডিও দেখে থাকেন তখন আপনার ভিডিওটি ভালো লাগে, তখন তাকে আপনি ফলো করার জন্য ইনস্টাগ্রাম এবং ফেসবুক ভিজিট করেন. একটা জিনিস কি লক্ষ্য করেছেন? শুধুমাত্র আপনি তাকে ফলো কেন করেন কারণ তাঁর ভিডিওটি আপনার ভালো লাগে. তো আপনাকে যেটা ফাইন আউট করতে হবে যে বিষয়ের ওপরে আপনি ভিডিও আপলোড করেন. ওই রিলেটেড য়েকটা চ্যানেল আপনি প্রথমে আগে সিরিয়াল wise সাজিয়ে নিবেন. তারপরে তাদের ইনস্টাগ্রাম এবং তাদের ফেসবুক ভিজিট করবেন.

দেখবেন যে সেখানে যতগুলো মানুষ তাকে ফলো করে রাখছেন ওই সকল ব্যক্তি কিন্তু ওই রিলেটেড ভিডিও দেখতে পছন্দ করে তো আপনি যদি তাদেরকে inbox করেন যারা follow করে রাখছে তাদেরকে যদি inbox করেন যে আপনিও এই related ভিডিও তৈরী করেন সেক্ষেত্রে দেখবেন যে অনেকেই আপনার চ্যানেল টি visit করার জন্য রাজি হয়ে যাবে এবং সেখানে আপনি তা আপনার চ্যানেল এর লিঙ্ক টি অথবা নামটি দিতে পারেন, সেক্ষেত্রে কোনোরকম হবে না.

এক্সাম্পল দেওয়ার জন্য মনে করেন যে আপনি আমার tech পোষ্ট দেখতে ভালোবাসেন সেক্ষেত্রে আপনি আমাকে Instagram এ follow করেছেন. অন্য একজন ব্যক্তি দেখল যে আমার follower আপনি. আপনাকে যদি massage করে এবং সে যদি আপনাকে সঠিক টেক বিডিওটি দিতে পারে, আপনি হয়তো তার চ্যানেলটি ভিজিট করবেন. আশা করি এতোসব আপনি বুঝতে পেরেছেন যে আপনি কোন বিষয়টা বোঝানোর চেষ্টা করছি. ডিরেক্ট লিঙ্ক দিবেন না,

সেই ক্ষেত্রে কিন্তু ওই ব্যক্তিটি কখনো একটা চ্যানেল ভিজিট করবেন. আপনি যদি বুঝাইতে পারেন ভিজিট করবে. দিনে যদি আপনি তিরিশ মিনিটে এই কাজটি করেন দেখবেন যে আপনার চ্যানেলে হয়তো তিরিশ থেকে চল্লিশটি subscribe এ আপনি নিয়ে আসতে পারবেন. Okay তো তারপরে যে বিষয়টি clob রেশন. আপনি যখন কোনো ভিডিও তৈরী করেন আপনি যদি অন্য কোনো channel এর সাথে collaboration করেন সেই চ্যানেল থেকে visitor easily নিয়ে আসা সম্ভব এবং ওই channel এ subscriber নিয়ে আসা সম্ভব. কিন্তু আপনার মনে সব থেকে বড় একটি প্রশ্ন হলো যে আপনার subscriber কম আপনার ভিসিট অর্ক, তাহলে আপনার চ্যানেলে কেন তারা ভিসিট করবে এবং কেন আপনার সাথে সে কোলাব্রেশন করবে একদম সিম্পল way তে আপনাকে বুঝায় দেয়,

আপনি কোন বড় চ্যানেলের সাথে কোলাব্রেশন করবেন না. মনে করেন আপনার চ্যানেলে দুইশো subscriber এবং এই চ্যানেলে দুইশো subscri আপনারা এই দুইজন corporation করতে পারেন ছোট চ্যানেল ছোট চ্যানেল কে collaboration করতে পারেন. তো এই চ্যানেলে যদি একশো views হয় এবং এই চ্যানেলে যদি একশো views হয়, এই দুইটা চ্যানেলে যদি একশো করেও views হয় দেখবেন যে দুইটা চ্যানেল থেকে কমপক্ষে হলেও তিরিশ থেকে subscriber দুইটা channel এ up down করতে থাকবে তো আপনি যখন একটি ছোট চ্যানেলকে যখন বলবেন যে আপনার সাথে collaboration করতে সে easily ভাবে রাজি হয়ে যাবে এবং আপনি যদি right no follow করেন আপনার এই Facebook এ আপনারই Instagram এ আপনারই friend circle এ অনেক চ্যানেল আছে,

যেগুলো আপনার রিলেটেড এবং আপনার মতোই সাবস্ক্রাইভার তাদেরকে আপনি বলতে পারেন যে আপনার সাথে আমি একটি কোলাব্রেশন করতে চাই এখানে চক্ষু লজ্জার কিছুই নেই আপনি যদি ওই ছোট ছোট চ্যানেলের সাথে কোলাব্রেশন করেন সেখান থেকে প্রতিদিন আপনি কমপক্ষে হলেও ভালো রকম একটি subscribe পেয়ে যাবেন এবং চাইলে কিন্তু আপনি এখনই apply করে দেখতে পারেন. তারপরে যে important বিষয়টি হলো সেটা হলো যে আপনার ভিডিও টির off time বাড়ানো. এবং off time বাড়ানোর জন্য আমরা অনেক পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারি.

তবে আজকের এই ভিডিও তে আপনাকে বলে দিবো যে আপনি যে কাজটি করতে পারেন আপনার WiFi বেদিত আপনার যে আসে পাশে যে ফোন গুলো আছে সেগুলো data দিয়ে আপনার চ্যানেলের off time এ আপনি বাইতে পারেন এবং আপনার ভিডিও টি আপনি rank এ নিয়ে আসতে পারেন. সেখান থেকে আপনার চ্যানেল এ subscribe এ আসতে পারে. কিন্তু এটা করা যাবে না নিয়মটি ভালো করে বুঝতে হবে, যদি আপনি একটি Wi-Fi এর আওতায় থাকেন, একটি একটিবার ভিডিও পেলে করতে পারেন, আপনার যদি দুইটা ফোন থাকে, দুইটাতে দুইটা data ব্যবহার করে আপনি এই ভিডিও টি পেলে করতে পারেন. কিন্তু ভিডিও পেলে পরে একটি নিয়ম আলাদা হবে আপনি YouTube এ চলে যাবেন,

YouTube এ যাওয়ার পরে আপনারা যে ভিডিও টি আপনি upload করেছেন হুবহু টাইটেল দিয়ে আপনি search করবেন. দেখবেন আপনার ভিডিও টি সবার উপরে চলে এসেছে. এবং ওই টাইটেল দিয়ে search করার পরে আপনি ভিডিও টি পেলে পরে সম্পূর্ণ ভিডিও টি দেখবেন. সেক্ষেত্রে যে সুবিধা হবে আপনার ভিডিওটার এসিওটা বেড়ে গেল এবং ইউটিউব দেখলো যে কেউ একজন আপনার ভিডিওটি সার্চ করে যেহেতু পেলে করতেছে অর্থাৎ তাহলে ভিডিওটি ইনফরমেশন ভালো দেওয়া আছে তাই হয়তো আপনার এই ভিডিওটি সার্চ করে পেলে করা হচ্ছে তো সেই ক্ষেত্রে আপনার ইউটিউব rank এ নিয়ে আসতেছে, ভিডিওটো rank এ নিয়ে আসতো, obviously other person ও যখন search করবে তখন আপনার ভিডিও টি rank এ চলে আসবে তারাও কিন্তু subscriber করতে বাধ্য.

তো এক্ষেত্রে আপনি আপনার চ্যানেল এ অনেক subscriber পেতে পারেন. এবং সর্বশেষ যে উপায় টি থাকে আপনি boosting করে এটি করতে পারবেন. কিন্তু সেক্ষেত্রে আপনার Google add hos এর সাহায্য নিতে হবে এবং এক হাজার subscriber করতে কমপক্ষে হলেও পনেরো দিনের মতো সময় লেগে যায়. আপনি ভিডিও description এ আমাকে WhatsApp এ connect হতে পারেন. আমিও আপনাকে help করার চেষ্টা করব. আপনার যদি এই ভিডিওটি দেখার পরে যদি এই চারটি উপায় যদি আপনি ব্যবহার করেন, কোনটি আপনার স্পা হবে না, প্রতিটি আপনার count হবে এবং আপনার subscriber টাও আপনি real way তে পাবেন. তো এই ছিল আজকের পোষ্ট। সবাই ভালো থাকুন। ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button